রবিবার, ২৬ মে ২০২৪ইংরেজী, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বাংলা ENG

শিরোনাম : বস্তি নয়, রিকশাওয়ালা-দিনমজুররাও থাকবে ফ্ল্যাটে: প্রধানমন্ত্রী আবারো আলোচনায়: ‘দি ম্যান এন্ড কোম্পানি’ সিলেট সচেতন নাগরিক কমিটির সকল কর্মসূচী বাতিল জেলা প্রেসক্লাবে সংবর্ধনা: সুমন'র এই অর্জন সিলেটের সাংবাদিকদের সম্মানিত করেছে কুলাউড়ায় রেললাইনে পারুলের ক্ষত বিক্ষত মরদেহ সিসিকের হোল্ডিং ট্যাক্স বাতিল, হবে রি-এসেসমেন্ট: মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী চা শিল্পের নানা সমস্যা নিরসনে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা বাগান মালিকদের খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তারেকের উপর মামলা প্রত্যাহার দাবিতে লন্ডনে মিছিল-সমাবেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আন্তরিকতায় সিলেট থেকে সরাসরি হজ ফ্লাইট চালু হয়েছে : শফিক চৌধুরী হোল্ডিং ট্যাক্স বাতিলের দাবিতে ২৮মে কোর্ট পয়েন্টে সমাবেশ

চলমান বৃষ্টিতে প্রাণ ফিরেছে চা বাগানে

সিলেট সান ডেস্ক ::

২০২৩-০৩-২১ ০২:২৯:৪৬ /

:

চলমান বৃষ্টিতে বোরো ফসলের পাশাপাশি উপকৃত হয়েছে চা শিল্প। সাম্প্রতিক বৃষ্টিতে প্রাণ ফিরে পেয়েছে সিলেটের চা বাগান। গত কয়েক দিন থেকে সিলেট বিভাগের প্রতিটি জেলায় বৃষ্টিপাত হয়েছে। এই বৃষ্টিপাত চলতি মৌসুমে চায়ের জন্য বয়ে এনেছে সুফল। বিশেষ করে পুনিং (আগাছাঁটাই) করা চা গাছে দ্রুত কুঁড়ি গজাতে শুরু করেছে। এতে খুশি বাগান মালিক ও চা সংশ্লিষ্ট সবাই।

জানা গেছে, সোমবার (২০ মার্চ) সকালে সিলেটে প্রচুর বৃষ্টিপাত হয়। সন্ধ্যায়ও সিলেটের অনেক স্থানে বৃষ্টি ঝরেছে।

তাছাড়া রোববার (১৯ মার্চ) সিলেটে বৃষ্টি হয়েছে। গত কয়েকদিন থেকে থেমে থেমে হওয়া বৃষ্টিতেও উপকৃত হয়েছে চা গাছ।

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলসহ চা শিল্পাঞ্চলে রোববার সকাল ৭ টা থেকে বিকেল ৩ টা পর্যন্ত তিন দফায় ১৫.৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে।

শ্রীমঙ্গল আবহাওয়া পর্যবেক্ষন কেন্দ্রের পর্যবেক্ষক বিভলু চন্দ্র দাস জানান, রোববার সকাল ৭ টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত তিন দফায় ১৫.৩ মিলি মিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড হয়েছে।

এ সময় বাতাসের গতিবেগ ছিল ৩ নটিক্যালমাইল অর্থাৎ ৫.৫৬ কিলোমিটার। সকাল ৬ টা ও দুপুর ১২ টায় বাতাসের আর্দ্রতা ছিল ৯৬ শতাংশ। আজ সোমবার সকালে বৃষ্টি হয়েছে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, সোমবার সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হয়েছে।

বৃষ্টিপাতের এই ধারা আরো কয়েকদিন অব্যাহত থাকতে পারে। এই বৃষ্টি সিলেট অঞ্চলের চা শিল্পের আরো অনেক উপকার করবে।

তারাপুর চা বাগানের ব্যবস্থাপক রিংকু চক্রবর্তী জানান, টানা অনাবৃষ্টিতে চা গাছ মরে যাওয়ার উপক্রম হয়েছিল। খরার কারণে সিলেটের চা বাগান সংশ্লিষ্টরা দুশ্চিন্তায় ছিলেন।

কয়েকদিনের বৃষ্টি চা গাছের প্রাণ ফিরিয়ে দিয়েছে। ইতোমধ্যে চা গাছ কুঁড়ি ছাড়তে শুরু করেছে।

চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল আশরাফুল ইসলাম বলেন, বৃষ্টিপাত হওয়াতে চা শিল্পের জন্য সুফল বয়ে এনেছে। বৃষ্টি হওয়ায় এখন চা গাছে দ্রুত নতুন কুঁড়ি চলে আসবে।

টিপিং দ্রুত হবে। এরপর প্লাকিংও শুরু হবে। আবহাওয়া অনুকুলে থাকলে লক্ষ্যে মাত্রার ওপরে চা উৎপাদন হবে বলে তিনি জানান।

এ জাতীয় আরো খবর

চলমান বৃষ্টিতে প্রাণ ফিরেছে চা বাগানে

চলমান বৃষ্টিতে প্রাণ ফিরেছে চা বাগানে

বৃষ্টির দেখা নেই, চা শিল্পে বিপর্যয়ের শঙ্কা

বৃষ্টির দেখা নেই, চা শিল্পে বিপর্যয়ের শঙ্কা

বন্যায় সবজি উৎপাদনে শঙ্কা,  ১ লাখ হেক্টর জমির আউশ ধানের ক্ষতি

বন্যায় সবজি উৎপাদনে শঙ্কা, ১ লাখ হেক্টর জমির আউশ ধানের ক্ষতি

সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাদকৃষি প্রযুক্তি

সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাদকৃষি প্রযুক্তি

বন্যায় সিলেট ও উত্তরাঞ্চলের প্রায় পৌনে ২ লাখ একর জমির আউশ ধান ক্ষতিগ্রস্ত

বন্যায় সিলেট ও উত্তরাঞ্চলের প্রায় পৌনে ২ লাখ একর জমির আউশ ধান ক্ষতিগ্রস্ত

কান্দিগাওয়ে বারি হাইব্রিড বেগুন-৪ এর মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত

কান্দিগাওয়ে বারি হাইব্রিড বেগুন-৪ এর মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত