রবিবার, ২৬ মে ২০২৪ইংরেজী, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বাংলা ENG

শিরোনাম : বস্তি নয়, রিকশাওয়ালা-দিনমজুররাও থাকবে ফ্ল্যাটে: প্রধানমন্ত্রী আবারো আলোচনায়: ‘দি ম্যান এন্ড কোম্পানি’ সিলেট সচেতন নাগরিক কমিটির সকল কর্মসূচী বাতিল জেলা প্রেসক্লাবে সংবর্ধনা: সুমন'র এই অর্জন সিলেটের সাংবাদিকদের সম্মানিত করেছে কুলাউড়ায় রেললাইনে পারুলের ক্ষত বিক্ষত মরদেহ সিসিকের হোল্ডিং ট্যাক্স বাতিল, হবে রি-এসেসমেন্ট: মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী চা শিল্পের নানা সমস্যা নিরসনে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা বাগান মালিকদের খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তারেকের উপর মামলা প্রত্যাহার দাবিতে লন্ডনে মিছিল-সমাবেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আন্তরিকতায় সিলেট থেকে সরাসরি হজ ফ্লাইট চালু হয়েছে : শফিক চৌধুরী হোল্ডিং ট্যাক্স বাতিলের দাবিতে ২৮মে কোর্ট পয়েন্টে সমাবেশ

চলে গেলেন কবি আসাদ চৌধুরী

সিলেট সান ডেস্ক ::

২০২৩-১০-০৫ ০৪:২১:২১ /

বাংলা সাহিত্যের অন্যতম খ্যাতিমান ও জনপ্রিয় কবি আসাদ চৌধুরী আর নেই। তার জামাতা নাদিম ইকবাল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। কবির মৃত্যুর বিষয় উল্লেখ করে তিনি তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, মৃত্যু হায়নাদের মতো তাঁর পিঁছু লেগেছিল অনেকদিন ধরেই। তিনি ছিলেন সিংহরাজ।

তিনি একটি মহান জীবন যাপন করেছেন! তার বিদেহী আত্মার জন্য দোয়া করবেন! কবি আসাদ চৌধুরী বেশ কয়েক বছর ধরে কানাডায় ছেলে-মেয়ের সঙ্গে বাস করছিলেন। তিনি গত বছর নভেম্বর থেকে ব্লাড ক্যান্সারে ভুগছিলেন।

গত ১৭ সেপ্টেম্বর কবির এনজিওগ্রাম করে দুটি ব্লকের ৯৯ ও ৮৮ শতাংশ সারানো হয়। ওইদিন তাকে কানাডার টরন্টোর পার্শ্ববর্তী শহর ওসোয়ার একটি হাসপাতালে আইসিইউ থেকে সিসিইউতে স্থানান্তর করা হয়েছিল।

সে সময় কবির জামাতা জানিয়েছিলেন, সকাল থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত আইসিইউয়ে থাকার পর কবিকে সিসিইউয়ে নেওয়া হয়। ফুসফুস ও হার্ট দুটিরই খুব ক্রিটিক্যাল অবস্থা। কবি আসাদ চৌধুরী বাংলাদেশের প্রধান কবিদের অন্যতম।

তিনি তার আকর্ষণীয় বাচনভঙ্গী, টেলিভিশনে জনপ্রিয় সব অনুষ্ঠান পরিকল্পনা ও উপস্থাপনার জন্য পরিচিত। মৌলিক কবিতা ছাড়াও শিশুতোষ গ্রন্থ, ছড়া, জীবনী এবং অনুবাদকর্মে তার অবদান প্রণিধানযোগ্য। ১৯৮৩ সালে তার রচিত ‘বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ’ শীর্ষক বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য গ্রন্থটি প্রকাশিত হয়।

এছাড়া একই বছর তিনি সম্পাদনা করেন বঙ্গবন্ধুর জীবনী ভিত্তিক গ্রন্থ “সংগ্রামী নায়ক বঙ্গবন্ধু”। কবি আসাদ চৌধুরী ১৯৪৩ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার উলানিয়ায় জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৫৭ সালে আরমানিটোলা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে প্রবেশিকা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন।।

১৯৬০ সালে বরিশালের ব্রজমোহন কলেজ থেকে তিনি উচ্চমাধ্যমিক সম্পন্ন করেন। পরবর্তীকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলায় স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ চুকে যাওয়ার পর কলেজে অধ্যাপনার মধ্য দিয়ে কবি আসাদ চৌধুরীর চাকরিজীবন শুরু।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া কলেজে তিনি ১৯৬৪ থেকে ১৯৭২ পর্যন্ত শিক্ষকতা করেন। পরবর্তীকালে তিনি বিভিন্ন খবরের কাগজে সাংবাদিকতা করেছেন। ১৯৮৫ থেকে ১৯৮৮ সাল পর্যন্ত তিনি ভয়েজ অব জার্মানির বাংলাদেশ সংবাদদাতার দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ১৯৭৩ সালে ঢাকায় বাংলা একাডেমিতে যোগদান করে দীর্ঘকাল চাকুরীর পর এর পরিচালক হিসেবে অবসর গ্রহণ করেন।

এ জাতীয় আরো খবর

পহেলা বৈশাখ বরণে ব্যাপক প্রস্তুতি রংপেন্সিল একাডেমির

পহেলা বৈশাখ বরণে ব্যাপক প্রস্তুতি রংপেন্সিল একাডেমির

চলে গেলেন কবি আসাদ চৌধুরী

চলে গেলেন কবি আসাদ চৌধুরী

শ্যামল সিলেট সাহিত্য পরিষদের  ইফতার মাহফিল সম্পন্ন

শ্যামল সিলেট সাহিত্য পরিষদের ইফতার মাহফিল সম্পন্ন

 ড. আহমদ মোশতাক রাজা চৌধুরীর ‘আমার ব্র্যাক জীবন’ গ্রন্থের অন্তরঙ্গ পাঠ অনুষ্ঠিত

ড. আহমদ মোশতাক রাজা চৌধুরীর ‘আমার ব্র্যাক জীবন’ গ্রন্থের অন্তরঙ্গ পাঠ অনুষ্ঠিত

শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতিতে অবদান: ১৫ জন পেলেন শিল্পকলা একাডেমী পুরষ্কার

শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতিতে অবদান: ১৫ জন পেলেন শিল্পকলা একাডেমী পুরষ্কার

সিলেটে চোখ ধাঁধানো অ্যাক্রোবেটিক প্রদর্শনী দেখে অভিভূত দর্শক

সিলেটে চোখ ধাঁধানো অ্যাক্রোবেটিক প্রদর্শনী দেখে অভিভূত দর্শক