আবারো আলোচনায়: ‘দি ম্যান এন্ড কোম্পানি’

স্টাফ রিপোর্ট :: || ২০২৪-০৫-২৫ ১১:৫০:৪৭

image

সিলেটের একটি আবাসন কোম্পানি যুক্তরাজ্য প্রবাসী এক নারীর কাছে প্লট ও ফ্ল্যট বিক্রি করে রেজিস্ট্রি করে দিচ্ছে না বলে অভিযোগ উঠেছে। শনিবার (২৫ মে) বেলা ২টায় সিলেট জেলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করেন ফেরদৌসী রহমান নামের এক নারী।

তিনি সিলেট মহানগরের শাহজালাল উপশহরের বাসিন্দা ও ব্রিটিশ নাগরিক। লিখিত বক্তব্যে ফেরদৌসী রহমান বলেন, ‘দি ম্যান এন্ড কোম্পানি’র কাছ থেকে তিনি ৭-৮ বছর আগে শাহজালাল উপশহরস্থ স্প্রিং গার্ডেন-২ এর ৪০৫ নং ফ্ল্যাট ক্রয় করেন।

ক্রয়ের সময়ই কোম্পানির সম্পূর্ণ বিক্রয়মূল্য পরিশোধ করে দেন ফেরদৌসী এবং শুরু থেকেই তিনি ওই ফ্ল্যাটের দখলে রয়েছেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত ‘দি ম্যান এন্ড কোম্পানি’ তাকে ফ্ল্যাটটি রেজিস্ট্রি করে দেয়নি।

এছাড়া কোম্পানির লোকজন বলে বেড়াচ্ছেন- ফেরদৌসী এ ফ্ল্যাটের ভাড়াটিয়া, মালিক নন। এ বিষয়ে কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফারুক আহমদ মিছবাহ’র সঙ্গে ফেরদৌসী রহমান বৈঠক করলেও এর সমাধান হয়নি।

ফেরদৌসী রহমান আরও জানান, এক পর্যায়ে কোম্পানি থেকে তাকে প্রস্তাব দেওয়া হয়- তাদের মালিকানাধীন গার্ডেন টাওয়ারের ১০৩১ নং ফ্ল্যাটে স্থানান্তর হওয়ার।

কিন্তু ফেরদৌসী এতে সম্মত না হওয়ায় ‘দি ম্যান এন্ড কোম্পানি’ তার হাতে স্প্রিং গার্ডেন-২ এর ৪০৫ নং ফ্ল্যাটের সার্ভিস চার্জ বাবদ ১ লাখ ২৬ হাজার টাকার বিল ধরিয়ে দেন। সেই টাকাও পরিশোধ করেন ফেরদৌসী।

কিন্তু পরবর্তীতে জানতে পারেন- ঠকানোর উদ্দেশ্যে এই টাকার মধ্যে ৬৩ হাজার টাকা অতিরিক্ত ধরে বিল দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে তিনি প্রতিবাদ করলে তার ফ্ল্যাটের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়। এছাড়া প্রায়ই ফ্ল্যাটের বিভিন্ন সার্ভিস বন্ধ করে দেয় ‘দি ম্যান এন্ড কোম্পানি’।

ওই ফ্ল্যাটে যাতায়াতের লিফটিও রাখা হয় বন্ধ করে। এতে হৃদরোগে আক্রান্ত ফেরদৌসি জীবনের ঝুঁকিতে রয়েছেন। প্রবাসী নারী আরও অভিযোগ করেন- গার্ডেন টাওয়ারে অবস্থিত ‘দি ম্যান এন্ড কোম্পানি’র একটি ফ্ল্যাট ক্রয় করে সেটি তাদের কাছেই ভাড়া দেন ফেরদৌসী রহমান।

এ ফ্ল্যাটের ভাড়া বাবদ কোম্পানিটির কাছে ১৮ লাখ ৬০ হাজার টাকা পাওনা তার। কিন্তু সে টাকাও পরিশোধ করছে না ‘দি ম্যান এন্ড কোম্পানি’। এছাড়া একই কোম্পানির মালিকানাধীন শাহজালাল উপশহরের এইচ ব্লকের ৪ নং রোডের নিকটবর্তী একটি প্লট কিনেন ফেরদৌসী।

কিন্তু কেনার পর জানতে পারেন- ওই জায়গার কাগজপত্র ঠিক নয়। প্রতারণামূলকভাবে ‘দি ম্যান এন্ড কোম্পানি’ তার কাছে প্লটটি বিক্রি করেছে।

এসব বিষয়ে সুবিচার পেতে সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন ফেরদৌসী রহমান।

Editor Incharge: Faisal Ahmed Bablu

Office : 9-C, 8th Floor, Bluewater Shopping City, Zindabazar, Sylhet-3100

Phone: 01711487556, 01611487556

E-Mail: sylhetsuninfo@gmail.com, newssylhetsun@gmail.com

Publisher: Md. Najmul Hassan Hamid

UK office : 736-740 Romford Road Manor park London  E12 6BT

Email : uksylhetsun@gmail.com

Website : www.sylhetsun.net